1. admin@ekushdarpon.com : ekushdarpon.com :
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
মাদারীপুরে এনএসআই’তে চাকুরী দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেয়া চক্রের নারীসহ ৪ সদস্য আটক ইতালীর ভেরনাতে লকডাউন বিহীন স্বাভাবিক জীবনের দাবীতে মানববন্ধন মাদারীপুরে ভুল চিকিৎসার অভিযোগে হাসপাতাল মালিক কারাগারে মাদারীপুরে করোনা ভাইরাসের ২য় ঢেউ মোকাবেলায় জেলা পুলিশের প্রচারনা মাদারীপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে পৌরসভার আয়োজনে সহস্রাধিক কোরআন হাফেজগণের কন্ঠে ১০০ বার কোরআন শরীফ খতম ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মাদারীপুরে দুই শিশুকে যৌন হয়রানির অভিযোগ মাদারীপুরে মামলার প্রক্সি দিতে এসে আটক মাদারীপুরে বাস চাপায় নিহত ১, বিক্ষুব্ধ জনতার বাসে আগুন কি লাইগা ঘরডা ভাঙ্গল,অহন কই থাহুম মাদারীপুরে ৩৭টি কচ্ছপ ও ৮৭টি কচ্ছপের খোলসা উদ্ধার॥ কচ্ছপ বিক্রেতার ৬ মাসের কারাদন্ড

মাদারীপুরে ভুল চিকিৎসার অভিযোগে হাসপাতাল মালিক কারাগারে

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ, ২০২১
  • ৫১ বার পড়া হয়েছে

মাদারীপুরে ভুল চিকিৎসার অভিযোগে হাসপাতাল মালিক কারাগারে

মঞ্জুরুল ইসলাম , মাদারীপুর
মাদারীপুরে ভুল চিকিৎসার অভিযোগে একটি প্রাইভেট হাসপাতালের মালিককে ৫ হাজার টাকা জরিমানাসহ এক মাসের কারাদণ্ড দিয়ে, জেল হাজতে প্রেরণ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার দুপুরে পৌর শহরের পানিছত্র এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মাদারীপুর শহরের পানিছত্র এলাকার এমএ টাওয়ারের নিচ তলা ভাড়া নিয়ে ডাঃ অমিত গড়ে তুলেছেন “মাদারীপুর চক্ষু হাসপাতাল” নামের এক প্রাইভেট হাসপাতাল। কিছুদিন আগে আনোয়ারা বেগম (৫৫) নামে এক মহিলার ওই হাসপাতালের চিকিৎসক মো: আবু ইউসুফের চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন। গত ১৪ ই মার্চ আবু ইউসুফের পরিবর্তে ডাঃ সুব্রত পাল আনোয়ারা বেগমের এক চোখের অপারেশন করেন। এরপর থেকেই আনোয়ারা বেগম চোখে সমস্যা হতে থাকে। এক পর্যায়ে আনোয়ারা এক চোখে কিছুই দেখেনা। ভুক্তভোগীর স্বজনরা বুধবার সকালে হাসপাতালে উপস্থিত হয়ে জেলা সিভিল সার্জন ও সাংবাদিকদের খবর দেন। পড়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে হাসপাতালের এমডি ডাঃ অমিতকে ১ মাসের কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আনোয়ারা বেগমের ছেলে দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমার মায়ের চোখের লেন্স লাগানোর জন্য ডাঃ আবু ইউসুফকে দেখাইছি। ডাঃ সুব্রত পাল আমাদের ভয় ভিতি দেখিয়ে আমার মায়ের চোখের অপারেশন করে। এরপর থেকেই আমার মা চোখে কিছু দেখেনা। আমি এর বিচার চাই।

জেলা সিভিল সার্জন শফিকুল ইসলাম বলেন, ওই হাসপাতাল ও ডাক্তারের জন্য তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে।

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ডা. রহিমা খাতুন বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে একজনকে এক মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত